Connect with us

ফুটবল

Durand Cup: দশ জনের মোহনবাগানই বাজিমাত করল ডুরান্ড কাপের ফাইনালে…

Published

on

রে স্পোর্টজ নিউজ ডেস্ক: অঙ্কটা এরকম ছিলনা। মরশুমের প্রথম ডার্বি জয় দিয়েই শুরু করেছিল কার্লেস কুয়াদ্রাতের ছেলেরা। ধারেভারে এগিয়ে থাকলেও মানসিক দিক থেকে পছিয়েই ছিল মোহনবাগান। তবে রবিবাসরীয় যুবভারতীতে বল গড়ানোর পর সেটা বোধহয় আর বুঝতে দিলেননা হুগো বুমোস, দিমিত্রিরা। একে বড় ম্যাচ, তাও আবার ডুরান্ড কাপ ফাইনাল। তাই শুরু থেকেই নিজেদের কিছুটা গুটিয়ে রেখেছিল দুই প্রধান। আর এখন বড় ম্যাচ মানে শুধুই তো ডার্বি নয়, দুই স্প্যানিশ হেড স্যারের মস্তিষ্কের লড়াই। আর এবারের লড়াইটা জিতে নিলেন জুয়ান ফেরান্দো। প্রথমার্ধের একেবারে শেষ মুহুর্তে মোহনবাগান এগিয়ে গেলে অবাক হওয়ার কিছুই ছিলনা। ডান প্রান্ত থেকে দিমিত্রি পেত্রাতসের শট অল্পের জন্য লক্ষ্যভ্রষ্ট হল। দ্বিতীয়ার্ধের শুরু থেকেই আক্রমণের ঝাঁঝ বাড়ায় দুই পক্ষ। আক্রমণ প্রতি আক্রমণের খেলায় জমে ওঠে ডার্বির উত্তেজনা। সময় যত গড়িয়েছে বড় ম্যাচের উত্তাপ ক্রমশই বেড়েছে।

গোটা ম্যাচ জুড়ে কতবার যে রেফারিকে কার্ড বের করতে হল তা খাতায় কলমে অঙ্ক কষে বলতে হবে। অহেতুক উত্তেজিত হয়ে ৫৬ মিনিটের মাথায় হলুদ কার্ড দেখলেন লাল হলুদের কোচ কুয়াদ্রাত। এরপর হঠাৎই যেন ছন্দপতন মোহনবাগানের। ৬১ মিনিটের মাথায় দ্বিতীয়বার হলুদ কার্ড দেখার দরুন অনিরুদ্ধ থাপাকে মার্চিং অর্ডার দিলেন রেফারি। ঘন কালো অন্ধকার নেমে এল সবুজ মেরুন গ্যালারি জুড়ে। দশজনের মোহনবাগানকে বাগে পেয়ে ম্যাচ বেড় করে নিতে পারতেন কার্লেস কুয়াদ্রাত। তবে ঘটলো ঠিক তার বিপরীত। দশজনের মোহনবাগান আরও ভয়ানক হয়ে উঠল। থাপা মাঠ ছাড়ার ঠিক দশ মিনিটের মাথায় গোল করে দলকে এগিয়ে দিলেন দিমিত্রি পেত্রাতস। প্রায় কুড়ি গজ দূর থেকে অনবদ্য শটে পরাস্ত করলেন প্রভসুখন গিলকে। যদিও শেষ কুড়ি মিনিট মরণকামড় দেওয়ার চেষ্টা করেছিল ইস্টবেঙ্গল ফুটবলাররা। আনোয়ার আলি, হেক্টর ইউস্তার ঠান্ডা মাথার রক্ষণে অটুট থাকে সবুজ মেরুন দূর্গ।

এক গোলে আগুয়ান থেকে দশজনের দল নিয়েও লিড ধরে রাখল মোহনবাগান। থাপার অনুপস্থিতি ভরাট করতে দুর্দান্ত চাল চাললেন জুয়ান ফেরান্দো। হুগো বুমোসকে তুলে নিয়ে মাঝমাঠে জুড়ে দিলেন গ্লেন মার্টিনেজকে, তার সাথে মাঠে নামলেন লিস্টন কোলাসো এবং জেসন কামিংস। তারপরেও যখন দেখলেন সুযোগের অপেক্ষায় রয়েছে লাল হলুদ ফুটবলাররা, তখন রক্ষণ সামলাতে নামিয়ে দিলেন ব্রেন্ডন হ্যামিলকে। শেষ কয়েক মিনিট মুহুর্মুহ আক্রমণ করেও গোল তুলে আনতে পারেনি ইস্টবেঙ্গল। শেষ পর্যন্ত ১-০ গোলে লাল হলুদ ব্রিগেডকে হারিয়ে মরশুমের প্রথম ট্রফিটা ঘরে তুললেন জুয়ান ফেরান্দোর ছেলেরা। সেই সঙ্গে মরশুমের প্রথম ডার্বি হারার সুমধুর বদলা নিয়ে নিলেন, তাও মাত্র ২১ দিনের মথায়।

আন্তর্জাতিক ফুটবল

জয়ে ফিরল বেলজিয়াম

Published

on

রে স্পোর্টজ নিউজ ডেস্ক – শনিবার রাতে রোমানিয়াকে ২-০ গোলে হারিয়ে ইউরো কাপের শেষ ষোলোয় যাওয়ার আশা বাঁচিয়ে রাখল বেলজিয়াম। প্রথম ম্যাচে স্লোভাকিয়ার কাছে অপ্রত্যাশিত হারের পর দুরন্ত প্রত্যাবর্তন লুকাকুদের। বেলজিয়ামের জয়ে জমে গেল গ্রুপ ই-এর লড়াই। একাধিক সুযোগ নষ্ট করেও জিতল বেলজিয়াম। এদিন ম্যাচ শুরুর দু’মিনিটের মধ্যেই টিলেম্যান্সের গোলে এগিয়ে যায় বেলজিয়াম। লুকাকুর পাশ থেকে বল জালে জড়াতে ভুল করেননি তিনি। এদিন মাত্র ৭৩ সেকেন্ডে গোল করে নজির গড়লেন টিলেম্যান্স। কোনও মেজর আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টের ইতিহাসে বেলজিয়ামের জার্সিতে সবচেয়ে দ্রুততম গোলের নজির গড়লেন তিনি। এরপরেই শুরু হয় সুযোগ নষ্টের বন্যা। ভাগ্য সঙ্গ দিচ্ছে না রোমেলু লুকাকুর। চলতি ইউরো কাপে এখনও স্কোরশিটে নাম তুলতে পারেননি তিনি। দুই ম্যাচ মিলিয়ে ইতিমধ্যেই তিনটি গোল বাতিল হয়েছে তাঁর। এদিনও তাঁর একটি গোল ‘ভার’এর সাহায্য নিয়ে বাতিল করেন রেফারি। তাছাড়াও বেশ কয়েকবার গোলের কাছাকাছি গিয়েও বল জালে জড়াতে পারেননি লুকাকু।

স্লোভাকিয়ার বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচ হারায় চাপে ছিল বেলজিয়াম। এদিন হারলেই বিদায়। তাই এদিন শুরু থেকেই গোলের জন্য মরিয়া হয়ে ওঠেন ডি-ব্রুইন, লুকাকুরা। মূলত বাম প্রান্ত ধরেই আক্রমণ তুলে আনছিল বেলজিয়াম। একাধিক পাশ বাড়ালেও, নিশানায় বল রাখতে পারেননি ডোকু, লুকাকুরা। প্রথমার্ধে এক গোলে পিছিয়ে থেকেই সাজঘরে যায় রোমানিয়া। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই তারা সমতা ফেরানোর সুযোগ পেয়েছিল। দ্বিতীয়ার্ধেও আধিপত্য বজায় রাখে বেলজিয়াম। তবে একাধিক সুযোগ নষ্ট করে ডি-ব্রুইনরা। বিক্ষিপ্ত আক্রমণে গোলের কাছাকাছি পৌঁছে গিয়েও কাজের কাজটা করে উঠতে পারেনি রোমানিয়া। শেষ পর্যন্ত ৭৯ মিনিটে কেভিন ডি-ব্রুইনের গোলে জয় নিশ্চিত করে বেলজিয়াম। এই জয়ের ফলে দুই ম্যাচে তিন পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপের দ্বিতীয় স্থানে বেলজিয়াম। বাকি তিনটি দলের পয়েন্ট সংখ্যাও তিন। শেষ ষোলোতে ওঠার লড়াইয়ে নাটকীয় শেষ রাউন্ডের মঞ্চ প্রস্তুত।

বেলজিয়াম – ২ (টিলেম্যান্স, ডি ব্রুইন)
রোমানিয়া – ০

Continue Reading

আন্তর্জাতিক ফুটবল

শেষ ষোলোয় পর্তুগাল, ড্র ফ্রান্সের

Published

on

রে স্পোর্টজ নিউজ ডেস্ক – তুরস্কের বিরুদ্ধে বড় জয় পর্তুগালের। ৩-০ গোলে জিতে ইউরো কাপের শেষ ষোলোয় জায়গা পাকা করে নিলেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোরা। প্রথম ম্যাচে জর্জিয়াকে হারানোর পর, দ্বিতীয় ম্যাচে তুরস্কের বিরুদ্ধে এগিয়ে থেকেই মাঠে নেমেছিল পর্তুগাল। নব্বই মিনিট জুড়েই আধিপত্য দেখাল সিআর সেভেনের দল। যদিও গোল পেলেন না সিআর সেভেন। ম্যাচ শুরুর ছ’মিনিটের মাথায় তুরস্কের কাছে এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ ছিল। ২১ মিনিটের মাথায় বার্নার্ডো সিলভার গোলে এগিয়ে যায় পর্তুগাল। সাত মিনিটের মধ্যেই তুরস্ক রক্ষণের ভুলে আত্মঘাতী গোল থেকে ব্যবধান দ্বিগুণ হয়। প্রথমার্ধে ২-০ গোলে এগিয়ে থাকায়, দ্বিতীয়ার্ধে আক্রমণের ঝাঁঝ বাড়ায় পর্তুগাল। ৫৪ মিনিটে রোনাল্ডোর বাড়ানো পাস থেকে গোল করে দলের জয় নিশ্চিত করেন ব্রুনো ফার্নান্ডেজ। ৩-০ গোলে তুরস্ককে উড়িয়ে দিয়ে হাসিমুখে মাঠ ছাড়েন সিআর সেভেনরা।

অন্যদিকে, ডাচেদের কাছে আটকে গেল এমবাপে-হীন ফ্রান্স। প্রথম ম্যাচে অস্ট্রিয়ার বিরুদ্ধে ১-০ গোলে জিতলেও, নাকে চোট পেয়েছিলেন ফরাসি তারকা ফুটবলার। নেদারল্যান্ডসের বিরুদ্ধে মাঠে নামার আগে এমবাপের চোট চিন্তায় রেখেছিল দিদিয়ের দেশঁকে। এদিন গোলশূন্য ড্র-তেই সন্তুষ্ট থাকতে হল ফ্রান্সকে। ম্যাচের প্রথম মিনিটেই এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ ছিল নেদারল্যান্ডসের কাছে। যদিও সে যাত্রায় ফ্রান্সকে রক্ষা করেন গোলরক্ষক মাইক মাইগনান। একাধিক সুযোগ নষ্ট করে ফ্রান্স। ৬৯ মিনিটে এগিয়ে গিয়েছিল নেদারল্যান্ডস। যদিও অফসাইডের কারণে সেই গোল বাতিল হয়ে যায়। গোল বাতিল নিয়ে অসন্তুষ্টি দেখা যায় ডাচ ফুটবলারদের মধ্যে। শেষ পর্যন্ত একটি করে পয়েন্ট নিয়েই মাঠ ছাড়ে দুই দল।

শনিবার প্রথম ম্যাচে চেকিয়ার বিরুদ্ধে ১-১ গোলে ড্র করেছে জর্জিয়া। প্রথমার্ধে পেনাল্টি থেকে গোল করে এগিয়ে যায় ‌জর্জিয়া। পেনাল্টি থেকে গোল করেন জর্জেস। দ্বিতীয়ার্ধে চেকিয়াকে সমতায় ফেরান প্যাট্রিক শিক। সুযোগ পেলেও কাজে লাগাতে পারেনি চেকিয়া। এক পয়েন্ট নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয় তাদের।

Continue Reading

ফুটবল

প্রকাশিত হল কলকাতা লিগের সূচি

Published

on

রে স্পোর্টজ নিউজ ডেস্ক – শনিবার রাতেই কলকাতা ফুটবল লিগের সূচি ঘোষণা করে দিল আইএফএ। উদ্বোধনী ম্যাচেই উয়াড়ির বিরুদ্ধে মাঠে নামছে কলকাতার এক প্রধান মহমেডান স্পোর্টিং। উদ্বোধনী ম্যাচটি হবে কিশোর ভারতী ক্রীড়াঙ্গনে। ইস্টবেঙ্গলের প্রথম ম্যাচ টালিগঞ্জের বিরুদ্ধে ৩০ জুন। অপরদিকে মোহনবাগান নামছে ২ জুলাই। সবুজ-মেরুনের প্রতিপক্ষ ভবানীপুর। দুই প্রধানই খেলবে ব্যারাকপুর স্টেডিয়ামে। মোট ২৬ টি দল অংশ নিচ্ছে এবারের কলকাতা লিগে। ১৩ জুলাই কলকাতা লিগের ডার্বি। তবে বড় ম্যাচের ভেন্যু এখনও চূড়ান্ত হয়নি।

Continue Reading

Trending