Connect with us

ফুটবল

হালান্ড, এমবাপেদের হারিয়ে অষ্টমবার ব্যালন ডি’অর জিতলেন লিও মেসি

Published

on

রে স্পোর্টজ নিউজ ডেস্কঃ মেসির মুকুটে যুক্ত হল আরও একটা পালক। সাফল্যের সরণীতে মেসির দৌড় অপ্রতিরোধ্য। ইন্টার মিয়ামিতে যোগ দেওয়ার পর অনেকেই বলেছিলেন মেসির সাফল্য হয়তো এখানেই শেষ। কিন্তু তিনি প্রমাণ করলেন তিনি ফুরিয়ে যাননি। আর্জেন্টাইন তারকা ফুটবলার আরলিং হালান্ড, কিলিয়ান এমবাপেকে হারিয়ে চলতি মরশুমের সোনার বল জিতে নিলেন। যে পুরষ্কার ব্যালন ডি’অর নামে পরিচিত। আর এই নিয়ে অষ্টমবার ব্যালন ডি’অর জিতলেন লিওনেল মেসি। ২০২২-২৩ মরশুমে দুর্দান্ত ছন্দে ছিলেন তিনি। আর্জেন্টিনাকে বিশ্বকাপ এনে দিয়েছেন। মিয়ামিতে যোগ দেওয়ার আগে প্যারিস সেন্ট জার্মানের হয়ে দূরন্ত খেলেছেন মেসি। দলকে খেতাব এনে দিয়েছেন। মিয়ামিতে যোগ দেওয়ার পরেও তার সাফল্যের দৌড় অব্যহত।

মেসি ম্যাজিকের প্রতিদান স্বরুপ তার হাতেই উঠল সোনার বল। ২০২৩ ব্যালন ডি’অর-এর সাম্ভাব্য প্রতিযোগিদের তালিকা ছিল দীর্ঘ। প্রায় ৩০ জন ফুটবলার নির্বাচিত হয়েছিলেন ব্যাক্তিগত এই খেতাবি লড়াইয়ে। শেষ পর্যন্ত সেরার সেরা নির্বাচিত হলেন লিও মেসি। দ্বিতীয় এবং তৃতীয় স্থানে রইলেন যথাক্রমে হালান্ড এবং এমবাপে। ম্যান সিটির হয়ে ৫২ গোলের মালিক আরলিং হালান্ডও হেরে গেলেন মেসির কাছে। অষ্টমবার ব্যালন ডি’অর জেতার পাশাপাশি একটা রেকর্ডও করলেন তিনি। ইন্টার মিয়ামির ফুটবলার হিসাবে এই প্রথম কোন ফুটবলার ব্যালন ডি’অর জিতলেন। লিওনেল মেসির হাতে সোনার বল তুলে দিলেন ইন্টার মিয়ামির কর্ণধার ডেভিড বেকহাম।

মহিলা ফুটবলে এই খেতাব অর্জন করলেন স্প্যানিশ মিডফিল্ডার এইটানা বনমাতি। তিনিও চলতি মরশুমে দুর্দান্ত ছন্দে রয়েছেন। বার্সেলোনাকে লিগা এফ চ্যাম্পিয়ন করার পিছনে তার বড় অবদান রয়েছে। মেসির সাফল্যের দিনে আরও একটা খেতাব এল আর্জেন্টিনার ঘরে। গোলরক্ষক এমিলিয়ানো মার্টিনেজ জিতলেন সেরা গোলরক্ষকের খেতাব। সব থেকে বেসি বার এই খেতাব জয়ের রেকর্ড বহাল থাকল মেসির নামের পাশে। মেসির পর পাঁচ বার ব্যালন ডি’অর জিতেছেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো। মেসির আটটি ব্যালন ডি’অর-এর মধ্যে প্রথম ছয়টি এসেছিল বার্সেলোনায় থাকাকালীন। সপ্তম খেতাব পিএসজির জার্সিতে এবং অষ্টমবার মিয়ামিতে। এখন মেসির লক্ষ্য কোপা আমেরিকা জয়। সাফল্যের চূড়ায় দাঁড়িয়ে নিজেকে এখনও সেরার সেরা প্রমাণ করতে মরিয়া লিও মেসি।

ফুটবল

২৭ জনের দল ঘোষণা করলেন স্টিমাচ

Published

on

রে স্পোর্টজ নিউজ ডেস্ক: কুয়েতের বিরুদ্ধে বিশ্বকাপের যোগ্যতা অর্জন পর্বের ম্যাচে মাঠে নামার আগে ভুবনেশ্বরে জোরকদমে প্রস্তুতিতে মগ্ন স্টিমাচ ব্রিগেড। সুনীল ছেত্রীর বিদায়ী ম্যাচ হিসেবে এই ম্যাচের আলাদা গুরুত্ব রয়েছে। কুয়েতের বিরুদ্ধে মাঠে নামার আগে ২৭ সদস্যের ভারতীয় দল ঘোষণা করলেন জাতীয় দলের হেড কোচ ইগর স্টিম্যাচ। ভুবনেশ্বরের ক্যাম্প থেকে লাচেনপা,পার্থিব গোগোই, ইমরান খান, মহম্মদ হামাদ এবং এমএস জিতিনকে বাদ দেওয়া হয়েছে। ২৯ মে পর্যন্ত তারা ভুবনেশ্বরে অনুশীলন করে কলকাতার উদ্দেশ্য রওনা দেবেন সুনীল ছেত্রীরা। কলকাতার আবহাওয়ার সাথে মানিয়ে নিতে আগেভাগেই শহরে পা রাখবেন তাঁরা। লক্ষ্য একটাই কলকাতার মাটিতে কুয়েতকে হারিয়ে বিশ্বকাপের যোগ্যতা অর্জন করবে তৃতীয় রাউন্ডে জায়গা করে নেওয়া। পাশাপাশি সুনীল ছেত্রীর বিদায়ী ম্যাচে তাঁকে জয় উপহার দেওয়া।

Continue Reading

ফুটবল

কিয়ান নাসিরি পা বাড়ালেন চেন্নাইয়েন এফসিতে

Published

on

রে স্পোর্টজ নিউজ ডেস্ক: গত কয়েক মরসুম সবুজ-মেরুন জার্সিতে বল পায়ে মাঠে নেমেছিলেন কিয়ান নাসিরি। বেশ কিছু ম্যাচে দলের হয়ে গোল করেছেন। ডার্বির মতো গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে হ্যাট-ট্রিক করে দলকে জিতিয়েছেন তিনি। সদ্য সমাপ্ত মরসুমে আন্তোনিও লোপেজ হাবাসের তত্ত্বাবধানে বেশ কিছু ম্যাচে পরিবর্ত হিসাবে নেমে নজর কেড়েছিলেন কিয়ান নাসিরি। তবে কিছুদিন ধরেই শোনা যাচ্ছিল আসন্ন মরসুমে চেন্নাইয়েন এফসিতে যেতে পারেন তিনি। সেটাই নিশ্চিত হয়ে গেল। আগামী মরসুমে আর সবুজ-মেরুন জার্সিতে দেখা যাবে না কিয়ান নাসিরিকে। আগামী মরসুমে চেন্নাইয়েন এফসির জার্সি গায়েই খেলতে দেখা যাবে কিয়ান নাসিরিকে।

Continue Reading

ফুটবল

ক্যাপ্টেনকে শুভেচ্ছা জানাচ্ছে গোটা দেশ

Published

on

রে স্পোর্টজ নিউজ ডেস্ক: সুনীল ছেত্রী শুধু একটা নাম নয়, ভারতীয় ফুটবলের আবেগ। বৃহস্পতিবার সকালেই নিজের সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের অবসরের কথা জানিয়েছেন ভারতীয় ফুটবল দলের অধিনায়ক। আগামী ৬ জুন যুবভারতী ক্রীড়াঙ্গনে কুয়েতের বিরুদ্ধে বিশ্বকাপের যোগ্যতা অর্জন পর্বের ম্যাচ খেলতে নামবে ভারত। এই ম্যাচেই শেষ বারের মতো জাতীয় দলের জার্সিতে দেখা যাবে সুনীলকে। বিদায়বেলায় সুনীলকে নিয়ে আবেগঘন বার্তা দিলেন তার সতীর্থরা। ফুটবলের ময়দান ছাড়িয়ে সুনীলের জন্য শুভেচ্ছা পাঠাচ্ছেন ক্রিকেট দুনিয়ার ব্যক্তিত্বরা।

সুনীল ছেত্রীর খুব কাছের বন্ধু বিরাট কোহলি। বন্ধুর বিদায়বার্তা জানতে পেরেই তাঁকে শুভেচ্ছা জানালেন বিরাট। বললেন “ভাই, তোমার জন্য আমি গর্বিত।” আইপিএল চলাকালীন আরসিবির শিবিরেও দেখা গিয়েছিল ছেত্রীকে। সুনীলের সতীর্থ গুরপ্রীত বললেন “এই দিনটা দেখার অপেক্ষায় ছিলাম না। ৬ জুন গোটা দেশ তোমার অবসর উদযাপন করবে। তুমিই সবার সেরা অধিনায়ক।” অন্যদিকে ভারতীয় ফুটবল সংস্থা বা ক্রিকেট বোর্ড, সকলেই শুভেচ্ছা জানালেন সুনীলকে। প্রায় দুই দশক ভারতীয় ফুটবলের প্রতিনিধিত্ব করে সুনীল এখন জাতীয় আইকন।

Continue Reading

Trending